নতুন এমপিওভুক্ত স্কুল-কলেজের বকেয়া বেতন-ভাতা সংক্রান্ত নির্দেশনা

নতুন এমপিওভুক্ত স্কুল-কলেজ এর বকেয়া বেতন-ভাতা

নতুন এমপিওভুক্ত ও স্তর পরিবর্তনকৃত স্কুল-কলেজ এর এপ্রিল ও মে মাসের বিশেষ এমপিও-২০২০ থেকে বাদপড়া শিক্ষক-কর্মচারীরাও বকেয়া সহ বেতন-ভাতা প্রাপ্ত হবেন।

স্কুল-কলেজের (নতুন এমপিওভুক্ত ও স্তর উন্নয়নকৃত) বকেয়া বেতন-ভাতা সংক্রান্ত নির্দেশনা

অবশেষে নতুন এমপিওভুক্ত স্কুল-কলেজ এর বিশেষ এমপিও সমুহ থেকে বাদপড়া স্কুল-কলেজ এর শিক্ষক-কর্মচারীরাও, বকেয়া সহ বেতন-ভাতা প্রাপ্ত হচ্ছেন।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর বিশেষ এমপিও হতে বাদপড়া শিক্ষক-কর্মচারীর, বকেয়াসহ বেতন-ভাতা প্রাপ্তির নির্দেশনা সম্বলিত এক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে।

২০২০ খ্রিষ্টাব্দের এপ্রিল ও মে মাসের ঘোষিত এমপিও সমূহে শিক্ষক-কর্মচারীরা পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী বকেয়া সহ বেতন-ভাতা পেয়েছেন।

কিন্তু অনেক শিক্ষক-কর্মচারী সফটওয়ার জটিলতা ও স্বল্প সময়ের কারণে, বিশেষ এমপিও’তে এমপিও আবেদন করতে না পারায় তারা এমপিওভুক্ত হতে পারেন নি।

পরবর্তীতে এমপিওভুক্ত হলেও তারা ঘোষিত বকেয়া সহ বেতন-ভাতা প্রাপ্ত হন নি। এমতাবস্থায় নতুন এমপিওভুক্ত সকল প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীর বকেয়া বেতন-ভাতা প্রদানের নির্দেশনা দেওয়া হয়।

এপ্রিল ও মে-২০২০ এমপিও’তে বাদপড়া শিক্ষক-কর্মচারীর এমপিও ও বকেয়া বেতন-ভাতা পাবেন যেভাবে

নতুন এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা যারা এখনো এমপিওভুক্ত হতে পারেন নি, তারা চলমান এমপিও’তে আবেদন করে এমপিওভুক্ত হতে পারবেন।

তবে নিয়মিত এমপিও’তে তারা বকেয়া বেতন-ভাতা পাবেন না, পরের এমপিও আবেদনের মাধ্যমে বকেয়া বেতন-ভাতা প্রাপ্ত হবেন।

বকেয়া বেতন-ভাতা প্রাপ্তির নির্দেশনায় বলা হয়, নিয়মিত এমপিও’তে এমপিওভুক্তির পরের মাসের এমপিও’তে প্রয়োজনীয় কাগজ-পত্রসহ বকেয়া বেতন-ভাতার জন্য অনলাইনে আবেদন করতে হবে।

এছাড়াও স্তর পরিবর্তনকৃত প্রতিষ্ঠানের প্রধান যারা স্তর উন্নয়নের পরে বেতন গ্রেড পরিবর্তন হয়েছে, তারাও বকেয়া বেতন-ভাতার জন্য আবেদন করতে পারবেন।

উদাহরণ স্বরূপ, যারা সেপ্টেম্বর/২০২০ মাসে বকেয়া ছাড়া এমপিওভুক্ত হয়েছে, তারা নভেম্বর/২০২০ মাসের এমপিও’তে বকেয়ার জন্য আবেদন করতে পারবেন।

নভেম্বর মাসের এমপিও’তে তারা ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দের ০১ জুলাই হতে ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের আগষ্ট মাস পর্যন্ত বকেয়া বেতন-ভাতার আবেদন করতে পারবেন।

অর্থাৎ যে মাস হতে চলমান এমপিও’তে বেতন-ভাতা প্রাপ্ত হয়েছেন, তার পূর্বের মাস পর্যন্ত বকেয়া বেতন-ভাতার আবেদন করতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এখানে উল্লেখ্য যে, যে সব শিক্ষক-কর্মচারী প্রথম যোগদান ০১ জুলাই ২০১৯ এর পরে, তারা প্রথম যোগদানের তারিখ হতে বকেয়া বেতন-ভাতা প্রাপ্ত হবেন।

আর যে সব শিক্ষক-কর্মচারী ১৯ এপ্রিল ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের পর নিয়োগপ্রাপ্ত হয়েছেন, তারা বকেয়া বেতন-ভাতা প্রাপ্ত হবেন না।

বকেয়া বেতন-ভাতা জন্য আবেদন  করতে পারবেন নতুন এমপিও ভুুক্ত ১৬৩৮ প্রতিষ্ঠানের (স্কুল-কলেজ) সেই সব এমপিও’র যোগ্যতা সম্পন্ন শিক্ষক-কর্মচারী, যারা এখনো এমপিওভুক্ত হতে পারেন নি।

নতুন এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীর, বকেয়া বেতন-ভাতার প্রদানের নির্দেশনার বিজ্ঞপ্তি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

এদিকে এমপিওভুক্তির নতুন সময়সূচী সম্বলিত বিজ্ঞপ্তি অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হয়েছে।

নতুন এমপিও আবেদনের সময়সূচী সম্পর্কে জানতে নিচের সংযুক্ত লিংকে ক্লিক করে বিস্তারিত জানুন।

স্কুল-কলেজের অনলাইন এমপিও আবেদন করতে, নিচের সংযুক্ত লেখাটি সহায়ক হতে পারে।

তথ্যসূত্র:

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর

2 মন্তব্য

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।