/ / স্কুল-কলেজ এখনই খুলছে না, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলতে পারে ৩০ মে থেকে

স্কুল-কলেজ এখনই খুলছে না, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলতে পারে ৩০ মে থেকে

স্কুল কলেজ (শিক্ষা প্রতিষ্ঠান) খুলছে না

স্কুল-কলেজ এখনই খুলছে না, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের চলমান সাধারণ ২৯ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। ৩০ তারিখে থেকে ক্লাশ শুরু হতে পারে।

দেশের সরকারি-বেসরকারি স্কুল-কলেজ খুলছে না, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ানো হয়েছে

বাংলাদেশের সরকারি-বেসরকারি স্কুল-কলেজ, বিশ্ববিদ্যায়, মাদ্রাসা, কারিগরি প্রতিষ্ঠান, কোচিং সেন্টার সহ সকল প্রকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এখনই খুলছে না।

করোনা ভাইরাস জনিত মহামারির কারণে, দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের চলমান সাধারণ ছুটি বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

পূর্বঘোষিত ২২ মে পর্যন্ত ছুটির পর, আরেক দফা ছুটি বাড়িয়ে ২৯ মে পর্যন্ত বর্ধিত করা হয়েছে। আগামী ৩০ মে থেকে স্কুল-কলেজ খুলতে পারে বলে জানা গেছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় এর গণসংযোগ কর্মকর্তা এম এ খায়ের ১৫/০৫/২০২১ তারিখ রাত ১০:০০ ঘটিকায় এক ফেসবুক পোস্টে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছুটির তথ্য নিশ্চিত করেছে।

দেশের করোনা সংক্রমন আবারো বাড়তে শুরু করেছে। মার্চ মাস থেকে দেশের করোনা সংক্রমন উর্ধ্বমুখী হওয়াতে লকডাউন বাড়ানোয় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এর আগে, করোনা বাড়ার কারণে ছুটি বাড়িয়ে  ২২ মে পর্যন্ত করা হয়েছিলো। আবারো আরেক দফা ছুটি বাড়িয়ে ২৯ মে পর্যন্ত প্রতিষ্ঠান ছুটি ঘোষণা করা হয়।

এরপর করোনা সংক্রমন নিয়ন্ত্রণে থাকলে ৩০ মে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলতে পারে বলে ধারণ করা হচ্ছে।

আরো পড়ুন:

এমপিও নীতিমালা ২০২১: স্কুল-কলেজ এমপিও নীতিমালা (সংশোধিত)

এসএসসি-এইচএসসি সংক্ষিপ্ত সিলেবাস ২০২১ | SSC-HSC Syllabus 2021

দাখিল-আলিম সংক্ষিপ্ত সিলেবাস ২০২১ | Dakhil-Alim Syllabus 2021

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের চলমান ছুটি ২৯ মে পর্যন্ত, এখনই স্কুল-কলেজ খুলছে না

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের চলমান সাধারণ ছুটি (কওমী মাদ্রাসা সহ) আরেক দফা বাড়িয়ে, ২৯ মে ২০২১ খ্রিষ্টাব্দ তারিখ পর্যন্ত নির্ধারণ করা হয়েছে।

সকল প্রতিষ্ঠানের সাথে কওমী মাদ্রসাও বন্ধ থাকবে। এর আগে অন্য সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও, কওমী মাদ্রাসা খোলা ছিলো।

দেশের সরকারি-বেসরকারি প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা মোতাবেক বন্ধ থাকবে।

করোনা কালীন ছুটির এই সময়ে, স্বাস্থ্যবিধি পালন করে শিক্ষার্থীদের নিজ নিজ বাড়ীতে অবস্থান করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

শিক্ষার্থীদের ছুটির সময়ে, সংসদ টিভিতে প্রচারিত ক্লাশ ও সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের অনলাইনে ক্লাশে যোগদান করে শ্রেণি শিক্ষা কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করতে হবে।

উল্লেখ্য, করোনা ভাইরাস মহামারীর কারণে দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের ১৭ মার্চ হতে বন্ধ আছে।

কয়েক দফা সাধারণ ছুটি বাড়িয়ে এই ছুটি ২০২১ খ্রিষ্টাব্দের মে মাসের ২৯ তারিখ পর্যন্ত বর্ধিত করা হয়েছে।

তবে ৩০ মে প্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে এখনো সংশয় কাটেনি। কারণ করোনা পরিস্থিতি অবনতি হলে ছুটি আবারো বাড়ানো হতে পারে।

 

আরো জানুন:

প্রাথমিক বিদ্যালয় ছুটি থাকবে ২২ মে পর্যন্ত, ক্লাশ শুরু ২৩ তারিখে

স্কুল ছুটির তালিকা ২০২১ প্রকাশ (সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান)

কলেজ ছুটির তালিকা ২০২১ প্রকাশ (সরকারি-বেসরকারি কলেজ)

মাদ্রাসার ছুটির তালিকা ২০২১ প্রকাশ (সরকারি ও বেসরকারি মাদ্রাসা)

বাংলাদেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলবে কবে?

বাংলাদেশের প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার কথা ছিলো ২৩ মে হতে।

কিন্তু শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি ১২/০৩/২০২১ খ্রিষ্টাব্দ তারিখে ঢাকার এক সংবাদ সম্মেলনে, করোনা সংক্রমন বাড়ায় প্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছিলেন।

করোনা বাড়লে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্তটি পুনঃ বিবেচনা করা হতে পারে। অর্থাৎ করোনা বাড়লে ছুটি আবারো বাড়ানো হতে পারে বলে ইঙ্গিত করেছিলেন।

আর সে প্রেক্ষিতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি ২২ মে পর্যন্ত করা হয়েছিলো। কিছু ঈদ উদযাপন উপলক্ষে ব্যপক সংখ্যক মানুষের সমাগম হওয়ায় আরেক দফা লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

আর সে কারণে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়িয়ে ২৯ মে পর্যন্ত বর্ধিত করা হয়েছে। কারণ দেশের করোনা পরিস্থিতি এখন বেশ নাজুক।

তবে প্রতিষ্ঠান না খুললে, আদৌ বলা যাবে না প্রতিষ্ঠান খুলেছে। কারণ বার বার ঘোষণা দিয়ে ছুটি বাড়ানো হচ্ছে।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা নির্ভর করছে করোনা মহামারী নিয়ন্ত্রণের উপর। করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে না আসা পর্যন্ত দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলছে না।

সম্প্রতি ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের এইচএসসি অটোপাশ ফলাফল প্রকাশের দিন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী স্কুল-কলেজ সহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে ইঙ্গিত করেছেন।

তিনি গোটা ফেব্রুয়ারি দেখে মার্চের দিকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে ইঙ্গিত করেছিলেন। সে অনুসারে ৩০ মার্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলতে পারে বলে শিক্ষা মন্ত্রণালয় আগাম জানিয়েছিলেন।

তবে মার্চে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের কারণে, কয়েক দফা ছুটি বাড়িয়ে ২৯ মে পর্যন্ত প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে বলে শিক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে।

যদি করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে থাকে, তাহলে ৩০ মে হতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলতে পারে। তবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুললেও, সকল শ্রেণির ক্লাশ একসাথে চলবে না বলে আগেই জানিয়েছেন শিক্ষা মন্ত্রী দীপু মনি।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুললে, কেবল পঞ্চম শ্রেণি ও ২০২১ খ্রিষ্টাব্দের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য সংক্ষিপ্ত সিলেবাস এর ভিত্তিতে সপ্তাহের ৬দিন শ্রেণি শিক্ষা কার্যক্রম চলবে।

অন্যান্য শ্রেণির কেবলমাত্র সপ্তাহে ১দিন করে ক্লাশ অনুষ্ঠিত হবে। এরপর পরিস্থিতি দেখে পর্যায়ক্রমে অন্যান্য সকল শ্রেণির ক্লাশ শুরু করা হবে।

প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের ক্লাশ অনুষ্ঠানের বিষয়ে এখন কোন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় নি।

আরো দেখুন:

প্রাথমিক সিলেবাস ২০২১ (পুনর্বিন্যাসকৃত) Primary Syllabus 2021

শিক্ষকদের করোনা টিকা নিতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জরুরী নির্দেশ (সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান)

তথ্যসূত্র:

শিক্ষা মন্ত্রণালয়

সবশেষ আপডেট: ১৫/০৬/২০২১ খ্রিষ্টাব্দ তারিখ ১১:৪৫ অপরাহ্ণ।

Share This:

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।