প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার সময়সূচি (তারিখ) 2022

প্রাথমিক সহকারি শিক্ষক পদে নিয়োগ তৃতীয় ধাপের লিখিত (MCQ) পরীক্ষা ৩ জুন অনুষ্ঠিত হবে। প্রার্থীর নিজ জেলা সদরে প্রাথমিকের নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

ব্রেকিং নিউজ: প্রাথমিকের ৩য় ধাপের নিয়োগ পরীক্ষার সময়সূচি ও নির্ধারিত জেলা/উপজেলা সমূহের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। তৃতীয় পর্যায়ের নিয়োগের লিখিত পরীক্ষার জেলার তালিকা জানতে নিচের প্রতিবেদন পড়ুন।

লক্ষ্য করুন:  প্রাথমিক নিয়োগের ৩য় ধাপের পরীক্ষার প্রবেশপত্র ২৯ মে থেকে ডাউনলোড করা যাবে। তৃতীয় ধাপের প্রাথমিক নিয়োগ পরীক্ষার প্রবেশপত্র সংগ্রহ করতে নিচের প্রতিবেদনটি পড়ুন।

প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রবেশপত্র (এডমিট) ডাউনলোড ২০২২

প্রাথমিকের সহকারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় মানতে হবে জরুরী ২৩ নির্দেশনা

dpe.teletalk.com.bd admit card download 2022 (Primary Teacher)

প্রাথমিকের এবারের নিয়োগ পরীক্ষা তিন ধাপে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সবশেষ তৃতীয় ধাপের নিয়োগ পরীক্ষার প্রার্থীদের নিজ জেলা সদরে অনুষ্ঠিত হবে বরে জানা গেছে।

প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা 2022: তৃতীয় ধাপের সময়সূচী ২০২২

দেশের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৪৫ হাজারের বেশি সহকারী শিক্ষক নিয়োগের প্রথম ধাপের লিখিত পরীক্ষা ২২ এপ্রিল ২০২২ খ্রি. তারিখে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

প্রথম ধাপের প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা-২০২০ এর লিখিত পরীক্ষা এদিন সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

প্রথম ধাপে ২২টি জেলায় একযোগে এই লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এর মধ্যে ১৪টির সব উপজেলা এবং ৮টি জেলার কয়েকটি উপজেলার পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ১ম ধাপের লিখিত পরীক্ষার রেজাল্ট প্রকাশ করা হয়েছে।

দ্বিতীয় ধাপের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে ২০ মে। বন্যার কারণে দ্বিতীয় ধাপে সিলেট জেলার পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়নি। দ্বিতীয় ধাপে ২৯ জেলায় পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এর মধ্যে ৭ জেলার সব এবং ২২ জেলার আংশিক উপজেলায় পরীক্ষা নেওয়া হয়েছে।

তৃতীয় ধাপের প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার তারিখ (সময়সূচি)

২০২২ সালে অনুষ্ঠিত প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা তিন ধাপে অনুষ্ঠিত হচ্ছে।  তৃতীয় ও সবশেষ ধাপের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে ৩ জুন ২০২২ খ্রি. তারিখ শুক্রবারে।

এদিন সকাল ১০:৩০ ঘটিকা হতে দুপুর ১২ ঘটিকা পর্যন্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। প্রার্থীদের সকাল ১০টার মাধ্যে কেন্দ্রে উপস্থিত হতে বলা হয়েছে।

তৃতীয় ধাপে ৩২ জেলায় পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে (সিলেট সহ)। এর মধ্যে ১৮ জেলার সব এবং ১৪টি জেলার আংশিক উপজেলায় পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার কেন্দ্রে কড়া নিরাপত্তা থাকবে বলে জানানো হয়েছে। প্রতিটি কেন্দ্রে একজন করে ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবেন।

পরীক্ষাকেন্দ্রের শৃঙ্খলা বজায় রাখা ও প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে এসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তারা।

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের সর্বশেষ খবর

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকের ৩২ হাজার ৫৭৭টি শূন্যপদে নিয়োগের জন্য প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের ২০ অক্টোবর বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে।

কিন্তু করোনা মহামারির কারণে নিয়োগ পরীক্ষা দীর্ঘ দিন গ্রহণ করা সম্ভব হয়নি। এদিকে প্রাথমিকে অবসরজনিত কারণে আরও দশ হাজারেরও বেশি সহকারী শিক্ষকের পদ শূন্য হয়ে পড়েছে।

এমতাবস্থায় মন্ত্রণালয় পূর্বের বিজ্ঞপ্তির শূন্যপদ ও বিজ্ঞপ্তির পরের শূন্যপদ মিলিয়ে প্রায় ৪৫ হাজারের বেশী সহকারী শিক্ষক নিয়োগের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। জুলাই মাসের দিকে এসব শিক্ষক নিয়োগ কার্যক্রম চুড়ান্ত করা হবে বলে জানা গেছে।

আরো পড়ুন:

প্রাথমিকে পোষ্য কোটা কারা পাবে? ব্যাখ্য দিল প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর

৪৪ তম বিসিএস নিয়োগ সার্কুলার: পরীক্ষার সিলেবাস ও সময়সূচি

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ২০২২ সংক্রান্ত সাধারণ তথ্য

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় এর অধিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর এর দাপ্তরিক ওয়েবসাইটে ২০/১০/২০২০ খ্রিষ্টাব্দ তারিখে এ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়।

অধিদপ্তর এর মহাপরিচালক (অতিরিক্ত দায়িত্ব) সোহেল আহমেদ স্বাক্ষরিত নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, অনলাইনে এই আবেদন করতে হবে।

দেশের তিন পার্বত্য জেলা ব্যতিত (রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবন), সকল জেলার প্রার্থীরা নিম্নবর্ণিত যোগ্যতা সাপেক্ষে, উক্ত পদের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

আবেদনের যোগ্যতা- কোন স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় হতে দ্বিতীয় শ্রেণি বা সমমানের সিজিপিএ সহ স্নাতক বা স্নাতক সম্মান বা সমমানের ডিগ্রি।

এবারই প্রথম, যেখানে নারী- পূরুষ উভয়েরই যোগ্যতা ন্যূনতম স্নাতক ডিগ্রি।

বয়স- ন্যূনতম ২১ বছর, সর্বোচ্চ ৩০ বছর (২০ অক্টোবর ২০২০ খ্রিষ্টাব্দ তারিখে)।

মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও শারিরিক প্রতিবন্ধীদের ক্ষেত্রে ৩২ বছর (এক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট সনদ প্রয়োজন হবে)।

বেতন স্কেল- টাকা ১১০০০-২৬৫৯০ (গ্রেড ১৩) জাতীয় বেতন স্কেল ২০১৫ অনুযায়ী।

পদসংখ্যা- অনির্দিষ্ট (বিজ্ঞপ্তিতে পদ সংখ্যা উল্লেখ করা হয় নি)। তবে এ সংখ্যা ৩২ হাজারের কিছু বেশী বলে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে জানা গেছে।

কোটা- এবারের প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগেও শতকরা ৬০ ভাগ নারী ২০ ভাগ পুরুষ ও ২০ ভাগ পোষ্য কোটা সংরক্ষিত থাকবে। এর মধ্যে ২০ ভাগ বিজ্ঞানের প্রার্থীদের জন্য সংরক্ষিত থাকবে বলে জানা গেছে।

আবেদন শুরু হয় ২৫/১০/২০২০ খ্রিষ্টাব্দ তারিখ সকাল ১০:৩০ টা হতে।

আবেদনের শেষ সময় ছিলো ২৪/১১/২০২০ খ্রিষ্টাব্দ তারিখ রাত ১১:৫৯ টা পর্যন্ত।

আবেদনের ফি- ১০০ টাকা + (১০ টাকা টেলিটক চার্জ সহ)= মোট-১১০ টাকা।

আবেদনের ওয়েবসাইট: http://dpe.teletalk.com.bd

উপরোক্ত ওয়েবসাইটের ঠিকানাটি ব্রাউজারের অ্যাড্রেসবারে লিখে, Directorate of Primary Education এর আবেদন পাতায় নিচের লিংকগুলো পাবেন।

Advertisement: লিংকে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি পাবেন।

Instruction: লিংকে আবেদনের প্রয়োজনীয় নির্দেশনা পাওয়া যাবে।

Application Form: লিংকে অনলাইন আবেদন করা যাবে।

২৫ অক্টোবর থেকে শুরু হয়েছে শেষ হয়েছে ২৪ নভেম্বর।এখন চলছে লিখিত পরীক্ষা গ্রহণের প্রস্তুতি।

আপনার আবেদন সংশোধনের প্রয়োজন হলে নিচের ছবির নির্দেশনা অনুসরণ করে তা সংশোধন করতে পারবেন।

অনলাইনে আবেদন করার নির্দেশীকা পেতে এখানে ক্লিক করুন

প্রাইমারি সহকারি শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২০

প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক পদে আবেদনের আগে বিজ্ঞপ্তি ভালোভাবে পড়ে নিন। প্রয়োজনীয় কাগজ-পত্র সংগ্রহে রাখুন। এরপর বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখিত দিন ও তারিখে আবেদন করুন।

মনে রাখবেন, আবেদনে কোন ভুল হলে বা ভুল তথ্য দিলে, আবেদনপত্র বাতিল হবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

অধিদপ্তরে প্রকাশিত মূল বিজ্ঞপ্তি দেখুন এখান থেকে

প্রাথমিকে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ সংক্রান্ত কোন বিষয়ে জানার থাকলে প্রশ্ন করতে পারেন।

বিষয়টি অন্যকে জানাতে সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করুন।

আরো জানুন:

DPE Notice: www.dpe.gov.bd: Primary Notice কীভাবে দেখবেন?

এনটিআরসিএ ৩য় গণবিজ্ঞপ্তির ধারাবাহিকতায় বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তি ২০২২

তথ্যসূত্র:

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর

সবশেষ আপডেট: ২৭/০৫/২০২২ খ্রিষ্টাব্দ তারিখ ১০:২৮ অপরাহ্ন।

Share This:

40 Comments

  1. amk edit korechi,,, but akhn samanno edit proyojon bodh korchi,,usr id and password dilaam,,,ashlo,,,, ur edit exceeded,,akhn aita ki kono prblm hobe,,,bcz j voolta oita tmn biraat noy,,shamanno,,,maane id borabor barir naam deina,,,,bcz id te vool baarir naam deewaa,,,akhn jeta diyechi oitaa right…….so poramorso caai

    1. প্রাথমিক শিক্ষক আবেদন সংশোধন সম্পর্কীত নোটিশটি ভালোভাবে পড়ে পদক্ষেপ নিন। আপনি তিনবার পর্যন্ত আবেদন সংশোধন করতে পারবেন। ধন্যবাদ।

  2. বিদেশে ডিপ্লোমা সম্পূর্ণ করা কেউ কী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক পদে আবেদন করতে পারবে? উল্লেখ্য এ ডিপ্লোমা কোর্সটি সম্মান সমমানের ছিল।জানালে উপকৃত হব ধন্যবাদ।

    1. আপনার প্রশ্নের বিষয়ে আমাদের কাছে নিশ্চিত কোন তথ্য নেই। তবে সমমান হলে করতে পারবেন। এবিষয়ে জানতে, কোন বিশ্ববিদ্যালয় এর দপ্তরে যোগাযোগ করে সনদের সমমান যাচাই করে দেখতে পারেন। ধন্যবাদ।

  3. আমি আমার পাসওয়ার্ড হারিয়ে ফেলেছি,ইউজার আইডি মনে আছে।কিন্তু কোন ভাবেই রিকভার করতে পারছি না,কোনভাবে উদ্ধার করা যাবে????

  4. প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ২০২২ইং। এবার কি ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে। এর আগেতো এমনটা হয়নি তবে সাধারণ পরীক্ষার্থীর অনেক হয়রানির শিকার হতে হবে। নুরুজ্জামান নান্দাইল ময়মনসিংহ।

    1. প্রাথমিক নিয়োগ পরীক্ষা কেন্দ্রীয়ভাবে ঢাকায় নেওয়ার কথা শোনা যাচ্ছে। বিষয়টি এবারই নতুন। এতে করে দূরের জেলার প্রার্থীরা সমস্যায় পড়বেন-একথা জোর দিয়ে বলা যায়।

  5. ভাইয়া আমার আবেদন করা ছিল ২০২০-১১-০৯ তারিখে।আমি কি ২২ এপ্রিল ২০২২ পরিক্ষা দিতে পারবো।যদি দয়াকরে জানাতেন তাহলে উপকৃত হতাম।

  6. প্রবেশ পত্র পেয়েছি কিন্তু পরিক্ষার তারিখ ২১সেপ্টেম্বর ২০২১ দেখাচ্ছে।আমি কি নতুন কোনো প্রবেশ পত্র পাবো।বললে উপকৃত হতাম।

  7. জি আমি সম্প্রতি প্রবেশ পত্র পেয়েছি।কিন্তু পরিক্ষার তারিখ ২১সেপ্টেমবর ২০২১ এবং venue NARINDA high school Dhaka দেখাচ্ছে। আমাকে সাহায্য কররে উপকৃত হতাম

    1. না, এখনে দ্বিতীয ও তৃতীয় ধাপের প্রাথমিক নিয়োগ পরীক্ষার জেলাগুলোর তালিকা প্রকাশ করা হয়নি। তালিকা প্রকাশ হলে এই প্রতিবেদনে তার খবর পাবেন।

  8. আমি ২য় ধাপের রেজাল্ট আসার পট আমার এপ্লিকেন্ট কপি ডাওনলোড দেই সেখানে আমি আমার অনার্স এবং মাস্টার্স এর রেজাল্টে ২.৮২ এবং ২.৯২ এর জায়গায় ৩.৮২ এবং ৩.৯২ দেখতে পাই। এ বিষয়ে আমার করনীয় কি প্লিজ একটু তাড়াতাড়ি জানান প্লিজ।।

    1. এঠা সম্ভবত আবেদন ফরম পূরণ করার সময় ভুল তথ্য দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে আপনি জেলার প্রাথমিক শিক্ষা অফিস থেকে পরামর্শ নিতে পারেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।