অনার্স ভর্তি ২০২২: জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তিতে কত পয়েন্ট লাগবে?

অনার্স ভর্তি ২০২২: জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি বিজ্ঞপ্তিতে ১ম বর্ষ অনার্স ভর্তি আবেদনের যোগ্যতা নির্ধারণ করা হয়েছে। গতবারের চেয়ে এবারে সকল শাখার আবেদনের নূণ্যতম জিপিএ পয়েন্ট বৃদ্ধি করা হয়েছে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি যোগ্যতা ২০২২: অনার্স ভর্তি হতে কত পয়েন্ট লাগবে?

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ২০২১-২০২২ শিক্ষা বর্ষের অনার্স শ্রেণির ভর্তি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। বিজ্ঞপ্তিতে ভর্তি আবেদনের ন্যূনতম জিপিএ পয়েন্ট গত বছরের চেয়ে কিছুটা বাড়িয়ে নির্ধারণ করা হয়েছে। এবারের প্রতিটি শাখার ভর্তি যোগ্যতার পয়েন্ট বাড়ানো হয়েছে।

এদিকে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের ভর্তি যোগ্যতা বাড়ানোয় অনেক শিক্ষার্থী বিপাকে পড়েছেন। বেশ কিছু শিক্ষার্থী ভর্তি পয়েন্ট বাড়ানোয় তারা কোন কলেজে আবেদন করতে পারবেন না বলে অভিযোগ করেছেন।

এছাড়া জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির যোগ্যতা বাড়ানোয় অনেক কলেজ পর্যাপ্ত শিক্ষার্থী পাবেন না বলে আশংকা প্রকাশ করেছেন। তাই সারাদেশে অধিভুক্ত কলেজগুলোর অধ্যক্ষদের কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে।

তারা বলছেন, শিক্ষার্থী কম ভর্তি হলে বেসরকারি অনার্স কলেজগুলোর শিক্ষকদের বেতন-ভাতা পরিশোধে তারা ব্যার্থ হবেন। কারণ অনার্স পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের বেতন থেকে পাওয়া টাকা দিয়ে এ পর্যায়ের শিক্ষকদের বেতনভাতা দেয় কলেজগুলো।

উল্লেখ্য যে, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির অনলাইন আবেদন ২২ মে থেকে শুরু হয়েছে। আবেদন করা যাবে ৯ জুন ২০২২ খ্রি. তারিখ পর্যন্ত।

আরো পড়ুন:

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) স্নাতক সম্মান ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২২

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি) ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১-২০২২

অনার্স ভর্তি হতে কত পয়েন্ট লাগবে ২০২২

২০২২ সালের জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অনার্স ১ম বর্ষ ভর্তি বিজ্ঞপ্তিতে ভর্তি আবেদনের ন্যূনতম যোগ্যতা নির্ধারণ করা হয়েছে।

বিভিন্ন শাখা থেকে পাসকৃত শিক্ষার্থীদের জন্য পৃথক পৃথক যোগ্যতা নির্ধারণ করা হয়েছে।

মানবিক শাখার শিক্ষার্থীদের যোগ্যতা

মানবিক শাখার শিক্ষার্থীদের দেশের যে কোন শিক্ষা বোর্ড/উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৮/২০১৯ সালের এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় ন্যূনতম জিপিএ ৩.৫ থাকতে হবে।

২০২০/২০২১ সালের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষায় ৪র্থ বিষয় সহ ন্যূনতম জিপিএ ৩.০ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারবে।

বিজ্ঞান ও ব্যবসায় শিক্ষা শাখা শিক্ষার্থীদের ভর্তি যোগ্যতা

বাংলাদেশে স্বীকৃত যে কোন শিক্ষা বোর্ড/উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান ও ব্যবসায় শিক্ষা শাখা থেকে ২০১৮/২০১৯ সালের এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় ন্যূনতম জিপিএ ৩.৫ পেতে হবে।

২০২০/২০২১ সালের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষায় ৪র্থ বিষয় সহ ন্যূনতম জিপিএ ৩.৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারবে।

তবে এখানে উল্লেখ্য যে, অনার্স ভর্তিতে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার পঠিত বিষয় সমূহ থেকে ভর্তি যোগ্য বিষয় নির্ধারণ করা হবে।

তবে উক্ত পঠিত বিষয়ে (২০০ নম্বরের) ন্যূনতম গ্রেড পয়েন্ট ৩.০ থাকতে হবে।

কারিগরি বোর্ডের শিক্ষার্থীদের  ভর্তি যোগ্যতা

কারিগরি শিক্ষা বোর্ড থেকে শুধুমাত্র এইচ.এস.সি. (ভোকেশনাল) এইচ.এস.সি. (বিজনেস ম্যানেজমেন্টে) ও ডিপ্লোমা-ইন-কমার্স পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বিজ্ঞপ্তি, আবেদনের সময়সূচি ও আবেদনের প্রক্রিয়া সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে নিচের প্রতিবেদন পড়ুন।

২০২২ সালের জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স ভর্তি যোগ্যতা সম্পর্কে কোম মতামত থাকলে আমাদের লিখে জানাতে পারেন।

তথ্যটি সবাইকে জানাতে সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করুন।

আরো দেখুন:

গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি ২০২২ (২২ সাধারণ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়)

বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার সময়সূচি: শিক্ষাবর্ষ ২০২১-২০২২

তথ্যসূত্র:

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

Share This:

33 Comments

  1. দয়া করে আমাদের আমাদের স্বপ্ন নষ্ট করবেন না সরকারি না হোক আমরা তো এমপি ভুক্ত কলেজ বা বেসরকারি কলেজ গুলো তে অনার্স পড়তে পারব অতএব দয়া করে আমাদের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে আমাদের স্বপ্নের কথা চিন্তা করে পুনরায় বিবেচনা করুন GPA এটা নিয়ে দয়া করুন্.

  2. আমার এসএসসি ২০১৭-২০১৮ পয়ন্ট ৩.১০ এবং এইচএসসি ২০২০-২০২১ পয়ন্ট ৩.৪৩ তবে আমি কি ২০২১-২০২২ অনার্স ভর্তি হতে পারব? আমি ২০২০ পরীক্ষা দিয়ে নাই। দয়া করে আমাকে উত্তর টা জানান।

    1. বর্তমান জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বিজ্ঞপ্তির তথ্য অনুসারে, এসএসসি ৩.৫ এর নিচের হলে ভর্তি আবেদন করা যাবে না।

  3. এস এস সি তে ৩.১১
    এইচ এস সি তে ৩.৫৮
    আমি কী অনার্সে ভর্তি হতে পারবো না? এস এস সি তে কেন জিপিএ নূন্যতম ৩.০ রাখা হয়নি।

    1. জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তিতে এবার এসএসসি সমমান পরীক্ষা ন্যূনতম জিপিএ ৩.৫ করা হয়েছে।

  4. আমি কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ডিপার্টমেন্টে ২০১৯-২০২০ ৩.৭২ পাই
    ৷ অতপর আমি কি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ভতি হতে পারবো
    দয়া করে জানাবেন।

    1. এইচ.এস.সি. (ভোকেশনাল) এইচ.এস.সি. (বিজনেস ম্যানেজমেন্টে) ও ডিপ্লোমা-ইন-কমার্স পরীক্ষায় উত্তীর্ণরা ভর্তি আবেদন করতে পারবে।

  5. আমার খুব স্বপ্ন ছিল আমি অনার্সে ভর্তি হবো কিন্তু আমার অনার্সে ভর্তি হওয়ার পয়েন্ট হয় নাই। আমার এসএসসি ২০১৮ থেকে ২০১৯ পয়েন্ট ৩.০৬ আর এইচএসসি ২০২০ থেকে ২০২১ পয়েন্ট ৩.৯২, হয়েছে। আজ আমি পয়েন্ট এর কাছে হেরে গেছি পয়েন্ট জন্য অনার্সে ভর্তি হতে পারলাম না। আপনারা পারেন আমার স্বপ্ন পূরন করতে, প্লিজ একটু দেখেন,, আমার মত অনেক মানুষ আছে যাদের স্বপ্ন ছিল অনার্সে ভর্তি হওয়ার। সবার স্বপ্ন পূরন করেন

  6. আমার এসএসসি তে বিজ্ঞান বিভাগ থেকে ৩.৫০ এইচএসসি তে বিজ্ঞান বিভাগ থেকে ৪.৩৩। এখন আমি অনার্স আবেদন করবো তবে মে কলেজে আবেদন করবো সে কলেজে চান্স পাওয়ার সম্ভাবনা কতটুকু বা তর্তি পরীক্ষা দিতে হবে নাকি??

    এ বিষয়ে কিছু জানতে চাই প্লীজ হেল্প।।

    আমার বাসা খাগড়াছড়ি জেলাতে এখন আমি ঢাকাতে অবস্থান করছি,এখানে কোনো এক সরকারি কলেজে আবেদন করতে চাই তাই চান্স পাওয়ার সম্ভাবনা জানতে চাচ্ছি…

    1. আপনি কোন কলেজে চান্স পেতে পারেন তা আগে থেকে বলা সম্ভব নয়। আপনি কোন কলেজে ভর্তির জন্য আবেদন করছেন সেটা ও সেখানে কেমন প্রতিযোগিতা হবে সেটা বিবেচ্য। আপনি যেখানে প্রতিযোগিতা কম হকে সেখানে আবেদন করুন।

    1. জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান ভর্তি বিজ্ঞপ্তি অনুসারে এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ ৩.৫ থাকতে হবে।

  7. আমি এস এস সি জিপিএ ৩.৩৯ এবং
    এইচ এস সি (BM) জিপিএ ৫.০০
    আমার খুব ইচ্ছে আমি অনার্স করবো, কিন্তু আমার স্বপ্নটা নষ্ট করে দিলো। আমি কি আর বর্তি হতে েপারবো অনার্সে?

  8. এসএসসি জিপিএ ৩.০৬,এইচএসসি তে জিপিএ ৩.৬৭। প্রশ্ন হলো এইচএসসি তে তো পয়েন্ট আছে বেশি তাহলে কি এসএসসির গড় কাটবে না?

  9. 3.50 এর নিচে কোনো বিকল্প নেই
    সরকারি কলেজ ব্যতিত বেসরকারি কলেজে আবেদন করা যাবে না

  10. আমি SSC তে ৩.২৮ পেয়েছি এবং HSC তে ৩.৬৮ পেয়েছি। আমি কোথাও অনাসে ভতি হতে না পারলে এখন আমার কি করা উচিত…. সার যদি দয়া করে উত্তর টা দিতেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।